গ্রাফিক্স ডিজাইনার কেনো হবেন? গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক্স  ডিজাইন কি?

গ্রাফিক ডিজাইন এমন একটি প্রক্রিয়া, যেখানে আমাদের নিজের আইডিয়া, শিল্প, এবং দক্ষতা, ব্যবহার করে ছবি, শব্দ , পাঠ এবং ধারণার মিশ্রণ করে একটি আলাদা এবং নতুন ছবি ডিজাইন তৈরি করি।Text, pictures এবং ধারণার মিশ্রনের দ্বারা তৈরি হওয়া এই নতুন চেহারাটিই হলো গ্রাফিক । বিভিন্ন advertisements, magazine, books, website বা logo সাজানোর জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রয়োজন হয়।গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মাধ্যমে কোন একটি মনের আকাঙ্ক্ষাকে ডিজাইন এর মাধ্যমে প্রকাশ করা যায়।

 

গ্রাফিক্স  ডিজাইন কেন শিখবেন?

 

১. উচ্চতর চাহিদা ২. উচ্চ বেতন স্কেল ৩. বাড়ীতে বসে কাজ করার সুবিধা ৪. স্বাধীনতা ৫. ক্রিয়েটিভিটি

 

Graphic design ক্যারিয়ারে চাকরির সুযোগ

এই বিষয় নিয়ে ডিগ্রী (degree) বা গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স পর এবং সব ধরণের দক্ষতা এবং জ্ঞান নিয়ে নেয়ার পর, আপনার জন্য প্রায় অনেক ক্ষেত্রে চাকরির সিযোগ এগিয়ে আসে।

সেগুলির মধ্যে কিছু হলো, গ্রাফিক্স ডিজাইন কি

Logo designer হিসেবে।

বিভিন্ন advertisement company তে।

Web designer হিসেবে।

Digital marketing agency তে।

Magazine এবং news paper কোম্পানির থেকে।

Application and game development কোম্পানি।

Media publishing কোম্পানি।

Brand identity designer.

Animation designer.

 

এবং, আরো অনেক কোম্পানি এবং ভাগ রয়েছে যেগুলিতে আপনারা একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

 

Graphics Design Course in Dhaka

 

কি কি কাজে গ্রাফিক্স ডিজাইন ব্যবহার করা হয় ? গ্রাফিক্স ডিজাইন কি

 

বর্তমানে বিভিন্ন এবং প্রায় অনেক কাজেই গ্রাফিক্স ডিজাইন ব্যবহার করা হয়। সেই, কাজ গুলির কিছু আমি নিচে আপনাদের বলে দিচ্ছি।

কোম্পানির ব্র্যান্ড (brand) পরিচয় বা লোগো (logo) তৈরি।

প্রিন্টেড করা জিনিসে (বই, নিউস পেপার, ম্যাগাজিনে) .

অ্যালবাম কভার (album cover) তৈরি।

ব্যানার বিজ্ঞাপন (banner advertisement) তৈরি।

Digital advertisement তৈরি করার সময়।

বিভিন্ন blog এবং website এ এর ব্যবহার হচ্ছে।

জলের বোতলে থাকা ওই ডিজাইন থেকে শুরু করে বিভিন্ন ভোগ্যপণ্য (consumer products) তে থাকা ডিজাইন।

অনলাইন এবং টিভি (TV) তে ব্যবহার করা গ্রাফিক্স (GRAPHICS) এবং টাইটেল (TITLE) .

বিভিন্ন GREETINGS CARDS এ।

বিয়ের invitation cards এ।

T-shirts এবং জামা কাপড় ডিজাইন করার সময়।

অ্যানিমেশন (animation) বানানোর সময়।

Business ও visiting cards বানানোর সময়।

এ ছাড়া আরো অনেক অনেক কাজ রয়েছে, যেখানে গ্রাফিক ডিজাইনিং এর কাজের প্রয়োজন।

 

যদি আপনি graphics designing শিখে এই লাইনে চাকরি করার কথা ভাবছেন, তাহলে প্রথম অবস্থায় মাইনে বা বেতনের পরিমান তেমন কোনো খারাপ না।


চাকরির মাধ্যমে আয়ঃ গ্রাফিক্স ডিজাইন কি

এই ক্যারিয়ার নিয়ে চাকরি করা লোকেরা প্রথমেই ১৫০০০ থেকে ৩০,০০০ এর ভেতরে (salary) পেয়ে যাচ্ছে।

তাছাড়া, আপনার কাজের অভিজ্ঞতা (experience) এবং knowledge যত বেশি বাড়বে ততটাই বেশি স্যালারি আপনার বৃদ্ধি পাবে। অভিজ্ঞতা এবং প্রফেশনাল দক্ষতা থাকা লোকেরা গ্রাফিক্স ডিজাইন ক্যারিয়ারে ৫০,০০০ থেকে ১ লক্ষ টাকা অব্দি স্যালারি পাচ্ছেন।

তাই, অধিক স্যালারি চাকরির মাধ্যমে পাওয়ার জন্য, গ্রাফিক ডিজাইনের ডিগ্রী বা কোর্স এবং তার সাথে কিছু বছরের অভিজ্ঞতা থাকাটা জরুরি।

অবশই, প্রথমেই একজন নতুন (fresher) হিসেবে ১৫ থেকে ৩০,০০০ টাকা বেতনে কাজ করে নিজের অভিজ্ঞতা বাড়াতে থাকতেই পারবেন।
ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে আয়ঃ

ফ্রিল্যান্সিং কি, এবেপারে আমি আপনাদের আগেই বলেছি। এ হলো এমন এক মাধ্যম, যেখানে যেকেও নিজের অভিজ্ঞতা, দক্ষতা এবং জানা কাজের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের কাজ অন্যদের জন্য করেন এবং সেই কাজের বিনিময়ে আপনাকে টাকা দেয়া হয়।Freelancing আপনি পার্ট-টাইম বা ফুল-টাইম যেরকম খুশি সেরকম করতে পারবেন। আপনি, অনলাইন বিভিন্ন freelancing websites বা social media র মাধ্যমে গ্রাফিক ডিজাইন এর সাথে জড়িত কাজ যেমন, logo design, web design, poster design, info graphic বা আরো অনেক ধরণের কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন। সফল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে আপনার জ্ঞান শক্তির চেয়ে কল্পনা শক্তি বেশী প্রয়োজন 


গ্রাফিক্স ডিজাইনাদের  বর্তমানে চাহিদা কেমন?এক কথায় বলতে গেলে বর্তমান বিশ্বে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ভ্যালু আকাশচুম্বী/ ব্যাপক। বর্তমানে যে কোন প্রতিষ্ঠান অনলাইনের মাধ্যমে তাদের মার্কেটিং করছে আর সে ক্ষেত্রে গ্রাফিক্স ডিজাইন টা অন্যতম একটি মাধ্যম। গ্রাফিক ডিজাইন এর মাধ্যমে তাদের প্রডাক্টের বিজ্ঞাপন অন্যান্য মার্কেটিং ভিজুয়াল কনসেপ্ট তৈরি করে থাকে এবং তাতে মার্কেটিং করে।

বর্তমানে যারা গ্রাফিক্স ডিজাইন এ কাজ করছে তাদের এভারেস্টে মান্থলি ইনকাম থাকে কমপক্ষে 30 হাজার থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত। এবং অনলাইনে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করেও অনেক অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। আমি এই আর্টিকেলের নিচে কয়েকটি মার্কেট প্লেসের নাম দিয়েছি সেখান থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে তাও আবার ঘরে বসে।

Related Posts

Popular Posts

Recent Posts